: প্রস্তাবিত

BDT 150,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

ঢাকা

Manikchad Ms1991
  • 2,300 কিলোমিটার

Brand new conduction Re-station No-Dhaka Metro Ha-508464. only use 2300 Km. all papers Ok. First hand bike. name change any time engine warranty 2 years & 30000 km. Free service 3 steel availab...

ফলাফল হালনাগাদ করুন
বাংলাদেশে টিভিএস মোটরসাইকেল বিক্রয়

বাংলাদেশে টিভিএস মোটরসাইকেল বিক্রয়

টিভিএস মোটরসাইকেল ব্র্যান্ডটি ভারতের একটি অন্যতম জনপ্রিয় ব্র্যান্ড এবং টিভিএস গ্রুপের একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান। এই কোম্পানিটি মোটরসাইকেল উৎপাদন শুরু করে ১৯৮৪ সালে। এটি দীর্ঘ সময় ধরে জাপানী কোম্পানি সুজুকি মোটর কোম্পানির সাথে সহযোগিতা বজায় রাখে। তাঁরা পরস্পরের মধ্যে প্রযুক্তি আদান-প্রদান করে বিশেষ করে মোটরসাইকেল তৈরির ক্ষেত্রে।

দীর্ঘ সময় ধরে টিভিএস তাদের নিজস্ব প্রযুক্তি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে এবং মোটরসাইকেল ব্র্যান্ডের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্র্যান্ড হিসেবে পরিচিতি লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। কোম্পানিটি ইতোমধ্যে ১০০সিসি মোপড শ্রেণীতে সর্বশ্রেষ্ঠ ব্র্যান্ড হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। এছাড়া তাঁরা স্কুটি নামে একটি মডেল বাজারে ছাড়ে যা কিনা ভারতের দ্বিতীয় বৃহৎ মডেল হিসেবে খ্যাতি লাভ করেছে। বর্তমানে কোম্পানিটি ভারতের বাইরেও তাদের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। সম্প্রতি তাঁরা জার্মান গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বিএমডাব্লিউ এর মোটরসাইকেল শাখার সাথে চুক্তি করেছে প্রযুক্তি আদান-প্রদানের লক্ষ্যে।

বাংলাদেশে টিভিএস ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল খুবই জনপ্রিয় এবং দেশের সর্বত্র এটি সহজ লভ্য। এই ব্র্যান্ডের অ্যাপাচি মডেলটি তরুণ সমাজের কাছে খুবই জনপ্রিয় এবং বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোটরসাইকেল মডেলগুলোর মধ্যে অন্যতম।

টিভিএস মোটরসাইকেলের প্রযুক্তি এবং বৈশিষ্ট্য

টিভিএস প্রতিনিয়তই তার গ্রাহকদেরকে নতুন নতুন প্রযুক্তি উপহার দিচ্ছে। তাদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে গ্রাহকদেরকে কম দামের কিন্তু ভালো মানের মোটরসাইকেল উপহার দেওয়া। কোম্পানি দাবি করে তাদের অ্যাপাচি আরটিআর ১৮০ মডেলটি যেকোন ২৫০সিসি মোটরসাইকেলের মতো পারফরম্যান্স দেয়। কোম্পানিটির রয়েছে এক ঝাঁক উদ্যমই ইঞ্জিনিয়ার এবং ডিজাইনার যারা প্রতিনিয়ত কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন নতুন এবং অত্যাধুনিক পন্য গ্রাহকদেরকে উপহার দিতে। এছাড়া তাঁরা জ্বালানী দক্ষতার বিষয়টিও মাথায় রাখে। এই ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল গুলো সাধারণত সহজে ব্যবহারযোগ্য এবং পরিবেশ বান্ধব। তাঁরা এমন কিছু ইঞ্জিন তৈরি করেছে যেগুলো ওজনের দিক থেকে হালকা এবং বেশি মাইলেজ দেয়। টিভিএস সাধারণত ডুরালাইফ এবং সিভিটি-আই (CVT-I) ইঞ্জিন ব্যবহার করে তাদের মোটরসাইকেল গুলোতে। অতি সম্প্রতি কোম্পানিটি তাদের মোটরসাইকেলে ইউএসবি চার্জার পোর্ট ব্যবহার শুরু করেছে।

বাংলাদেশে টিভিএস মোটরসাইকেলের জনপ্রিয় মডেলগুলো

গত কয়েক বছর ধরে টিভিএস বেশ কিছু জনপ্রিয় মডেল বাজারে নিয়ে এসেছে। টিভিএস মোটরসাইকেলে জ্বালানী সাশ্রয়  এবং নতুন নতুন প্রযুক্তির ব্যবহারের কারনে ব্র্যান্ডটি প্রতিনিয়ত প্রসারিত হচ্ছে এবং জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এখানে টিভিএস ব্র্যান্ডের কিছু জনপ্রিয় মডেলের বর্ণনা দেওয়া হলোঃ

অ্যাপাচি আরটিআর – বিভিন্ন দেশে এই মডেলটির বিভিন্ন সংস্করণ পাওয়া যায়। বাংলাদেশে সাধারণত ১৫০সিসি সংস্করণটি সহজলভ্য। এই মোটরসাইকেলটি ১৩,৫ হর্স পাওয়ার ক্ষমতা সম্পন্ন এবং ঘণ্টায় ০-৬০ কিলোমিটার গতি অর্জন করতে সময় লাগে মাত্র ৫,৩ সেকেন্ড। এর ককপিটে দুইটি ডিজিটাল মিটার রয়েছে এবং অন্যান্য বৈশিষ্ট্য কিছুটা অনন্য।

মেট্রো – এই মাঝারী পারফর্মেন্স এর বাইকটির দাম কম এবং মধ্য আয়ের মানুষের জন্য যথোপযুক্ত। এর ১০০সিসি ইঞ্জিন আপনাকে দিবে আরামদায়ক অনুভূতি এবং সুন্দর গ্রাফিক্স ও বডি ডিজাইন আপনাকে দিবে আভিজাত্যের ছোঁয়া। এছাড়া জ্বালানী সাশ্রয়ী ভূমিকা এই মোটরসাইকেলটিকে ভারতের বাজারে একটি জনপ্রিয় মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে।

ফিনিক্স – এই মডেলটি টিভিএস এর মতে সর্বশ্রেষ্ঠ কর্পোরেট মোটরসাইকেল। এই মোটরসাইকেলের স্থায়িত্ব, মাইলেজ, স্টাইল, সহজে ব্যবহারযোগ্যতা এবং আরামদায়ক বৈশিষ্ট্য আপনাকে আকর্ষণ করবেই। এটির ১২৫সিসি ইঞ্জিন এবং সফ্ট টাচ সুইচগিয়ার এবং ডিজিটাল স্পিডোমিটার অন্যান্য মোটরসাইকেল থেকে এটিকে আলাদা করতে সক্ষম হয়।

ওয়েগো – এই স্কুটারটি সর্বপ্রথম ২০০৯ সালে বাজারে আসে বডি ব্যালান্স টেকনোলজি নিয়ে। এই ১১০সিসি স্কুটারটি ছেলে-মেয়ে সবার জন্য উপযোগী একটি বাইক এবং এর সিট এর নিচে যথেষ্ট জায়গা রয়েছে মালপত্র বহন করার জন্য। এছাড়া এই বাইকের এলইডি লাইটগুলো আপনাকে রাতে চলতে সহায়তা করবে সেই সাথে ইঞ্জিনের উপর থেকে চাপ কমাবে।

এই মডেলগুলো ছাড়াও বাংলাদেশে আরও কিছু মডেল যেমন- ফ্লেম, পেপ, স্টার, স্টারস্পোর্টস, জিভ এবং ভিক্টর ইত্যাদি বেশ জনপ্রিয়।

বাংলাদেশে টিভিএস মোটরসাইকেলের সহজলভ্যতা     

বাংলাদেশে প্রচলিত সকল মোটরসাইকেলের মধ্যে একমাত্র টিভিএস সবচেয়ে বেশি মডেল বাজারজাত করছে। তাঁরা সরাসরি বাংলাদেশে মোটরসাইকেল আমদানি এবং বাজারজাত করছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে ডিলার নিয়োগের মাধ্যমে এই ব্র্যান্ডটিকে তাঁরা সহজলভ্য করে তুলেছে। মোটরসাইকেল বিক্রির পাশাপাশি টিভিএস বাংলাদেশে অটোরিকশাও বিক্রি করছে।

টিভিএস সম্পর্কে কিছু মজাদার তথ্য

এই ব্র্যান্ডটিকে ভারতের ১ নাম্বার বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড হিসেবে গণ্য করা হয় এবং এর অ্যাপাচি আরটিআর হচ্ছে বাংলাদেশে সর্বাধিক বিক্রিত ১৫০সিসি ক্যাটাগরির মোটরসাইকেল।