: প্রস্তাবিত

BDT 78,000 রোড মূল্য

জয়দেবপুর

Yasin Hosen
  • 49,000 কিলোমিটার

top speed 103 (tested) 50 to 65 km per litter (normal drive) Dhaka Metro.. reg. & digital number plate....well condition....no modify....always use genuine tvs parts(grunted) and Price Fixed....o...

ফলাফল হালনাগাদ করুন
বাংলাদেশে টিভিএস ফ্লেম বিক্রয়

বাংলাদেশে টিভিএস ফ্লেম বিক্রয়

টিভিএস ফ্লেম ভারতীয় কোম্পানি টিভিএস মটরস এর তৈরি করা একটি ১২৫ সিসি মোটরসাইকেল৷ এটা ভারতীয় বাজারে আসে ২০০৮ সালে জানুয়ারীতে বাজাজ অটোর ফাইল করা মামলার ঝামেলা শেষ হবার পর, যেটা ফাইল করা হয়েছিল টিভিএস ফ্লেমে দুই স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার করার জন্য৷ বাজাজ অটো তরফ থেকে এটা একটা প্রযুক্তি লঙ্ঘন কেস ছিল৷ পরে টিভিএস আরও বিতর্ক এড়ানোর জন্য সিঙ্গেল স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার করে৷ পরে আবার সব জরুরি অনুমতি আর আইনগত ক্লিয়ারেন্স নিয়ে টিভিএস তিন স্পার্ক ফ্লেম বাজারজাত করে ২০০৯ সালের ১৩ই নভেম্বরে৷ তার পরে অবশ্য টিভিএস ফ্লেম উৎপাদন বন্ধ করে টিভিএস ফিনিক্স উৎপাদন শুরু করে৷

টিভিএস ফ্লেম রিভিউ

টিভিএস ফ্লেম স্পেসিফিকেশন

এই একজেকিউটিভ সেগমেন্ট বাইক ফ্লেমের আছে এয়ার কুল্ড, ১২৫ সিসি ইঞ্জিন যেটাকে প্রপেল করে ৩ ভাল্ভ সিসি-ভীটিআই প্রযুক্তি, টুইন স্পার্ক প্লাগ, যা কো-ডেভেলপ করা হয় এভিএল অস্ট্রেলিয়ার সাথে৷ এই পবের্ত্রাইন উৎপাদন করে ১০.৩ হর্স পাওয়ার ৭৫০০ আরপিএম এ আর এটার সর্বোচ্চ টর্ক ১০ নিউটন মিটার ৬০০০ আরপিএম এ৷ এটার আরও আছে ৪ স্পিড কনস্ট্যান্ট মেশ গিয়ার্ সহ আদর্শ টাম্বেল- সয়ার্ল পোর্ট কম্বিনেশন৷ এছাড়াও আছে টেলিস্কপিক হাইড্রলিক ফর্ক যেহেতু এটার ফ্রন্ট সাসপেনশন আর টুইন টিউব ৫ স্টেপ এডজাসটেবল গ্যাস দিয়ে ফিল করা সাস্পেন্সন পেছনের দিকে৷ এই অসধারণ ইঞ্জিনিয়ারিং আপনাকে দেয় দারুন পারফরমেন্স৷ টিভিএস ফ্লেমের সর্বোচ্চ গতি ১০৫ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা, আর এটা ০ থেকে ৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা বেগে পৌছাতে পারে শুধু মাত্র ৬ সেকন্ডে৷ এটার ফুয়েল এফিসিয়েন্সি নির্ভর করে চালানোর অবস্থার ওপর আর শহুরে রাস্তায় এটার মাইলেজ ৬৫ কিলোমিটার প্রতি লিটার এবং মহাসড়ক অবস্থায় এটার মাইলেজ ৮০ কিলোমিটার প্রতি লিটার৷ এটার ফুয়েল ট্যাঙ্ক ক্যাপাসিটি ৯.৫০ লিটার

টিভিএস ফ্লেম ডিসাইন

টিভিএস ফ্লেম প্রেরণা নেয় ফাইটার এয়ার উইং থেকে আর এটার ডিসাইন কিউস এ একটা ত্রিভুজ থীম আছে৷ এটার আধুনিক স্টাইলিংকে পারফেক্ট বানায় স্পেশাল হেডল্যাম্প সেটআপ যেটা আপনাকে দেয় স্বচ্ছ ও শক্তিশালী আলো৷ ফুয়েল ট্যাঙ্ক এর ওপর স্পোর্টস এরোডাইনামিকস গ্রাফিক্স বাইকটাকে দেয় স্পোর্টি ভাব৷ এটার রিয়ার ভিউ আয়না আর অন্যান্য ফীচার্স টিভিএস অ্যাপাচি থেকে নেয়া৷ এই বাইক ৩টি আকর্ষনীয় রঙে উপলব্ধ: নীল, কালো এবং লাল। টিভিএস এর মাফলারে আছে ক্রোম ফিনিশ করা ত্রিভুজ প্রান্ত, যার কারণে পেছন থেকে বাইকটাকে চমৎকার। তার ওপর, বাইকটা বেশ হাল্কা৷ এটার কার্ব ওজন মাত্র ১২৩ কেজি / ২৭১ পাউন্‌ড৷   

টিভিএস ফ্লেম বৈশিষ্ট্য

টিভিএস ফ্লেমের ইন্সট্রুমেন্ট কনসোলে আছে অ্যানালগ স্পিডোমিটারের জন্য একটি বড় গোলাকার ডায়াল, এবং হলুদ এলসিডি। অন্যান্য বৈশিষ্ট্য হচ্ছে ট্রিপ মিটার, ঘড়ি, ডিজিটাল ওডোমিটার, ফুয়েল গজ, মাইলেজ ইন্ডিকেটর, সার্ভিস রিমাইন্ডার, এবং বিভিন্ন এলইডি ইন্ডিকেটর।

বাংলাদেশে টিভিএস ফ্লেমের মূল্য

কারমুডি অনুযায়ী টিভিএস ফ্লেম মোটরসাইকেলের বর্তমান মূল্য নিচে দেয়া আছে:

টিভিএস ফ্লেম ২০১৪ মূল্য: নতুন –১লাখ ৫৫ হাজার টাকা

টিভিএস ফ্লেম ২০১১ মূল্য: ব্যবহৃত –৮০ হাজার থেকে ১লাখ ১৫হাজার টাকা

টিভিএস ফ্লেম ২০০৮ মূল্য: নতুন – ৯৮ হাজার টাকা

কেন আপনি টিভিএস ফ্লেম কিনবেন?

টিভিএস ফ্লেম এভিএল অস্ট্রিয়ার সঙ্গে কাজ করে তৈরি করা হয়েছিল। এটির ১২৫সিসির ৩-ভাল্ভ ইঞ্জিন আদর্শ সুয়ার্ল-টাম্বল পোর্ট কম্বিনেশনের সাথে টিউন করা, যাতে এটি একসাথে অসাধারন পারফর্মেন্স আর অল্প থেকে মাঝারি মানের শক্তির সর্বোত্তম ব্যবহার ও প্রচুর জ্বালানী সাশ্রয় করতে পারে। আপনি যদি এমন একটি বাইক চান যা শহরে কম গিয়ার শিফটের সঙ্গে আরামদায়ক একটি ভ্রমনের অভিজ্ঞতা দেবে চমৎকার মাইলেজের সাথে, তাহলে টিভিএস ফ্লেম আপনার জন্য সেরা মোটরসাইকেল। বাংলাদেশের বাজারে টিভিএস ফ্লেমের সঙ্গে আরো পাল্লা দিচ্ছে হোন্ডা শাইন, হোন্ডা স্টানার, হোন্ডা টুইস্টার, হিরো হোন্ডা গ্ল্যামার, এবং বাজাজ ডিসকভারআপনার টিভিএস ফ্লেম কেনা উচিৎ কারন এই বাইকটি আপনাকে দেয়

  • চমৎকার এরোডাইনামিক্স
  • কম এয়ার-টু-ফুয়েল রেশিও
  • জ্বালানী-সাশ্রয়
  • সহজলভ্য স্পেয়ার পার্টস