: প্রস্তাবিত

BDT 2,100,000

Dhaka

GOOD DRIVE
  • 30,000 কিলোমিটার

CLEARANCE SALE!!! CLEARANCE SALE!!! CLEARANCE SALE!!! ‘’ FULLY LOADED TOYOTA PRIUS HYBRID’’ -Model : 2010 -Transmission Automatic - G-Edition -HID Head Lamps -Yellow Fog Lights -COLOUR :Z Blac...

BDT 2,920,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

Dhaka

Zam Zam Car & Automobiles-Dhaka
  • 57,000 কিলোমিটার

Silver / Grey Toyota Prius 2012 Alpha G গাড়িটির আছে Automatic ট্রান্সমিশন সিস্টেম এবং অনন্য ফিচার। 1 কিমি মাইলেজ বিশিষ্ট গাড়িটি স্টকে থাকবে সীমিত সময়ের জন্য। আর আপনার গাড়ি বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ...

BDT 1,450,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

Dhaka

N.S. Car Gallery
  • 50,000 কিলোমিটার

Toyota Prius Hybird First Party Family Use, Push Start, Model-2009, Reg-2014, 1500 CC, Full Option Auto, CD, AC Ice Cool, Engine Very Good Condition, Central Lock, Anti Theft Security System, No...

BDT 2,750,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

Chittagong

M/S Wali Car Collection
  • 59,000 কিলোমিটার

TOYOTA PRIUS ALPHA, HYBRID, ZVW41, S, PROJECTION HID HEAD LAMP, 5 SEAT, 5D, AT, AAC, PS, PW, ABS, AIR BAG, FOG, NAVI, BACK MONITOR, AUDIO STEERING, YEAR 2012, 1800CC, PANORAMA ROOF, PEARL COLOR, ...

BDT 1,500,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

ঢাকা

Syed Nabil
  • 66,000 কিলোমিটার

It's a 2nd Generation Toyota Hybrid Prius with 2014 registration. All the papers are up to date. The fuel efficiency is excellent, even in typical traffic condition of Dhaka City. Gives me abou...

দাম জানুন

Baridhara

MH Auto
  • 29,457 কিলোমিটার

Built In Air-Condition , Power Steering, Power Window, Power Mirror(Retractable), HID Projection Head Light, Black Full Leather Seat, Optical Miter, Crouse Control, Smart Kee, premium sound speak...

দাম জানুন

Baridhara

MH Auto
  • 38,457 কিলোমিটার

Built In Air-Condition , Power Steering, Power Window, Power Mirror(Retractable), HID Projection Head Light, Black Seat, Optical Miter,2 Door Power, Body Kit, Sun/Moon Roof , Roof Rail, Crouse Co...

দাম জানুন

Baridhara

MH Auto
  • 34,125 কিলোমিটার

Built In Air-Condition , Power Steering, Power Window, Power Mirror(Retractable), HID Projection Head Light, Black Seat, Optical Miter, Crouse Control, Smart Kee, premium sound speaker, Back Came...

দাম জানুন

Baridhara

MH Auto
  • 40,125 কিলোমিটার

Built In Air-Condition , Power Steering, Power Window, Power Mirror(Retractable), HID Projection Head Light, Black Seat, Optical Miter, Crouse Control, Smart Kee, premium sound speaker, Back Came...

ফলাফল হালনাগাদ করুন
বাংলাদেশে টয়োটা প্রিয়াস বিক্রয়

বাংলাদেশে টয়োটা প্রিয়াস বিক্রয়

১৯৯৭ সালে টয়োটা তাদের প্রথম ইলেকট্রিক গাড়ি প্রিয়াস বাজারজাত করে। মাস প্রোডাকশন এর জন্য হাইব্রিড ক্যাটাগরিতে মুক্তি পাওয়া এটাই দ্বিতীয় গাড়ি। হোন্ডা ইনসাইট এর পরপর বাজারজাত হওয়াতে এটা বাজারে সরাসরি প্রভাব ফেলে। স্বীকৃতি পাওয়ার পরীক্ষার ক্ষেত্রে, অন্যান্য গাড়ির বাজারে থাকা সত্তেও বেশ ভালই করেছে, তাও আবার শুধু একটা ফীচার এর ওপর নির্ভর করে: হাইব্রিড ফ্যাক্টরটা। অনেক বছর ধরে টয়োটা তাদের প্রিয়াস মডেল আরও উন্নত করে আসছে আর এখন প্রিয়াস এতটাই সফল যে এটাকে এখন পৃথিবীর সবচেয়ে পরিবেশ বান্ধব আর জনপ্রিয় হাইব্রিড গাড়ি বলা যায়।

টয়োটা প্রিয়াস রিভিউ

টয়োটা প্রিয়াস পুরো ফুয়েল এফিসিয়েন্ট ক্যাটাগরির গাড়ির সংজ্ঞা বদলে দিয়েছে এই প্রতিশ্রুতির সাথে যে চালকরা ব্যবহারযোগ্যতার সাথে আপোষ না করে, বা প্রতিদিন দেয়ালে গাড়ি প্লাগ না করেও তেলের পয়সা বাঁচাতে পারবেন। সেই জন্যই টয়োটা এতগুলো বছর টয়োটা প্রিয়াস এর পেছনে ব্যায় করেছে। এখন পর্যন্ত টয়োটা প্রিয়াস এর ৩টি ভার্সনে উপলব্ধ।

এক্স ডাব্লিউ ১০ সিরিজ

১৯৯৭ সালে বাজারজাত করা এই গাড়িটা টয়োটার জন্য অনেক বড় একটা কদম ছিলো। এটা ছিলো পৃথিবীরে সর্বপ্রথম উৎপাদিত গ্যাসোলিন-হাইব্রিড গাড়ি। ইলেকট্রিক গাড়ি হওয়া সত্তেও এটার পারফরমেন্সে কখনো কোনো কমতি আসেনি। এই গাড়ি অনেক বেশি গতিতে লম্বা রাস্তা অতিক্রম করতে সক্ষম। এটা বাজারজাত হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই এটাকে আলট্রা লো এমিশন যান এর খেতাব প্রদান করা হয়।

এক্স ডাব্লিউ ২০ সিরিজ

প্রিয়াস এর এই দ্বিতীয় প্রজন্ম ২০০৩ সালে বাজারজাত হয় আর তার পূর্বপুরুষের তুলনায় আরও অনেক উন্নত। এই গাড়ির সব স্পেসিফিকেশন বাদ দিয়ে একেবারে নতুন করে আবার ডিসাইন করা হয় যেন গাড়িটা হয় আরও ব্যবহারযোগ্য। গাড়িটার গঠন বদলানো হয়: যান্ত্রিক আর অন্দরের জায়গা বাড়িয়ে গাড়িটা হয় আরও প্রশস্ত, যাতে করে পেছনের সীটের পা রাখবার আর লাগেজ রাখার জায়গা বেড়ে যায়। ক্যামবাক বডি আর ছোট কিন্তু শক্তিশালী নিএমএইচ ব্যাটারী থাকে গাড়িটা হয়ে ওঠে আরও এরোডাইনামিক। এটাকে পার্শিয়াল জিরো এমিশন যান এর খেতাব প্রদান করা হয়, আর সুপার আলট্রা লো এমিশন যান এর ক্যাটাগরিও অন্তর্ভুক্ত করা হয়।  

এক্স ডাব্লিউ ৩০ সিরিজ

প্রিয়াস এর সবচেয়ে নতুন প্রজন্ম বাজারজাত হয় ২০০৯ সালে। এর এরোডাইনামিক গঠন এর কারণে মার্কেটে এর স্থান হয়ে ওঠে আগের প্রিয়াস এর চেয়ে পোক্ত। পরে, টয়োটা এক্স ডাব্লিউ ৩০ সিরিজ এর ৩টি ভার্সন বের করে। প্রত্যেকটা গাড়ি একেকটি জনপ্রিয় চাহিদা জন্য।

  • প্রিয়াস প্লাগ-ইন হাইব্রিড
  • প্রিয়াস ভি
  • প্রিয়াস সি

টয়োটা প্রিয়াস এর ৪র্থ প্রজন্ম গড়ছেপ্রিয়াস পিএইচভি নামক এই সিরিজটা লক্ষ্য করবে আরও ফুয়েল ইকোনমিক ইঞ্জিন, হালকা গঠন আর সাশ্রয়ী মূল্যের দিকে। সাধারণ মার্কেটে ২০১৫ সালের মধ্যে এই গাড়ি দেখা দেবে বলে আসা করা  যাচ্ছে।

বাংলাদেশে টয়োটা প্রিয়াস এর মূল্য

প্রিয়াস এর খ্যাতি বাংলাদেশের বাইরে অন্যতম হলেও, দেশী বাজারে এটার জনপ্রিয়তা খুব একটা বেড়ে ওঠেনি। কারণটা হচ্ছে গাড়িটির মূল্য। করের হার অনেক বেশি হওয়ার কারণে, শেষ পর্যন্ত এই গাড়ি কেনার খরচ অনেক বেশি হয়, আর তাই এটার অন্যতম পারফরমেন্স আর হাইব্রিড ফীচার্স থাকা সত্তেও এটার জনপ্রিয়তা কমে আসে। কারমুডিতে উপলব্ধ টয়োটা প্রিয়াস গাড়ির মূল্য  শুরু হয় ২৫,০০,০০০ টাকা থেকে। তবুও, বাজারে এটার উপস্থিতি আশাপূর্ণ, কারণ এটার মেইনটেনেন্স খরচ অনেক স্বল্প আর একদম পরিবেশ সচেতন ব্যক্তির জন্য এর ভালো গাড়ি আর হয় না। ঢাকা আর চট্টগ্রাম শহরে পরিবেশ দূষণ যেই হারে বাড়ছে, প্রিয়াস এই অবস্থার জন্য আদর্শ গাড়ি।