: প্রস্তাবিত

BDT 500,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

চট্টগ্রাম

Azad_ctgkk Azad_ctgkk
  • 50,000 কিলোমিটার

Akta modern food buzz sell kora Hobe. Like international kitchen indoor. More information call me.

BDT 330,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

ঢাকা

Minarsmia Minarsmia
  • 20,000 কিলোমিটার

ভাল অবস্থা সব কাগজ ঠিক আছে ঢাকা মেট্রো 16-1846

BDT 220,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

Bangladesh

Abir Barua
  • 7,000 কিলোমিটার

White Tata Shati 2015 এর দাম মাত্র ৳ 220000। 7000 কিমি মাইলেজ এবং Manual ট্রান্সমিশন সিস্টেম সমৃদ্ধ গাড়িটি Registration on January 2017. All papers are ok (with Metro Route Permit). Brought from ...

BDT 300,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

চট্টগ্রাম

Md Rashedul Alam
  • 60,000 কিলোমিটার

Running pickup Tata ace fresh no problem with ligel papers with up-to date. If you want to get more detail about this vehicle, please contact the owner through his phone number or physically visi...

ফলাফল হালনাগাদ করুন
পৃষ্ঠাটি রিফ্রেশ করুন রিসেট
বাংলাদেশে টাটা গাড়ি বিক্রয়

বাংলাদেশে টাটা গাড়ি বিক্রয়

যখনি আমরা মোটর যানের কথা চিন্তা করি, তখনি আমাদের মনে পরে জাপানী ব্র্যান্ডগুলোর কথা, যেমন হোন্ডা আর টয়োটা , যেগুলো বাজারের ওপর রাজত্ব করে চলেছে৷ কিন্তু আমাদের উপমহাদেশের ভেতরেই আছে আরেকটি বৃহৎ যান বাহন নির্মাতা, যেটার কারণে আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারতের গর্ব করার অনেক কারণ আছে৷ এই গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি টাটা  মটরস ৷ এটার সদর দপ্তর মহারাষ্ট্রের মুম্বাই শহরে, আর উৎপাদন প্লান্ট আর অ্যাসেম্বলি লাইন আছে জামশেদপুর, পান্টনগর, লাকনাউ, সানন্দ, ধারওয়াদ, আর পুনেতে। টাটা মটরস পৃথিবীর ষোলতম বৃহৎ গাড়ি নির্মান কোম্পানি৷

১৯৯১ সালে টাটা সিয়ের্রা নামক প্রথম গাড়ি নির্মান করে এরা অটোমোবাইল শিল্পে ভারতের হাতেখড়ি দিয়েছে৷ তারপর ১৯৯৮ সালে বাজারজাত হয় টাটা ইন্ডিকা, আর ২০০৮ সালে টাটা ন্যানো, যেটা পৃথিবীর সবচেয়ে সাশ্রয়ী গাড়ি৷  

বাংলাদেশে টাটার জনপ্রিয় মডেলগুলো

টাটা মটরস প্রধানত উৎপাদন করে কম্প্যাক্ট গাড়ি, মাঝারি আকারের গাড়ি আর ইউটিলিটি যান৷ পৃথিবীর ২৬টি দেশে আর ৪টি মহাদেশে এটার মার্কেট আছে, কিন্তু এটার প্রধান মার্কেট এই উপমহাদেশেই, আর বাংলাদেশ এই গাড়ির জন্য অনেক বড় একটা বাজার৷ টাটা ন্যানোর মত মডেল সারা বিশ্বে অনেক নাম করেছে এটার স্বল্প দামের জন্য৷ কারমুডিতে লিস্ট করা টাটা গাড়িগুলো হচ্ছে:

টাটা ন্যানো

টাটা ন্যানো ভারতে নির্মান ও বিক্রি হয় এই লক্ষ্য নিয়ে যে সবার  জন্য  একটি  গাড়ি  হবে৷ এটার গড় মুল্য ১০০,০০০ ভারতীয় রুপী (১,২৫,০০০ টাকা)৷ সময়ের সাথে এই দামটা বাড়ে। ফীচার্স এর দিকে থেকে এটার পাওয়ার স্টিয়ারিং ছিল না, যেটার কারণ এটার হালকা ওজন৷ তাছাড়া এটার  বিল্ট  ইন  এয়ারব্যাগ  বা এয়ার  কন্ডিশনিং  ও ছিল না৷ এটার রিয়ার ইঞ্জিন ৬২৪ সিসি, যেটার আছে আরও বড় দুটো সিলিন্ডার (একেকটা ৩১২ সিসি)৷ এটার ত্বরণ ৩০ সেকেন্ড০ থেকে ৬০ কিমি/ঘন্টা, আর ফুয়েল  এফিসিয়েন্সি  ২৫.৩৫ কিমি  প্রতি  লিটার ৷ টাটা ন্যানোর দ্বিতীয় প্রজন্ম ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বাজারজাত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে৷

টাটা ইন্ডিকা

১৯৯৮ সালে নির্মিত, টাটা ইন্ডিকা ভারতের প্রথম লোকাল ভাবে ডিসাইন করা সুপারমিনি  গাড়ি ৷  এটা ভারতের সবচেয়ে বেশি  বিক্রি  হওয়া  গাড়িগুলোর  মধ্যে  একটি , আর ২০০৪ সাল ধরে ইউরোপে এবং আমেরিকাতে রপ্তানি শুরু হয়েছে৷ টাটা মটরস এই গাড়ির প্রথম প্রজন্ম ১.৪ লিটার ডিজেল বা পেট্রল ইঞ্জিন সহ ইন্ডিকা ভিটু নামে রি-ইঞ্জিনিয়ার করে কারণ তারা অনেক অভিযোগ পায়৷ এই ২য় প্রজন্ম একেবারে নতুন প্লাটফর্ম নিয়ে নির্মান হয় আর প্রথম  প্রজন্মের ইন্ডিকার  সাথে  এটার  কোনো  মিল  নেই ৷ এটা আকারে আরো বড় এবং এটার আছে ফিয়াত এর ১.৩ লিটার কুয়াদ্রাযেত কমন রেল ডাইরেক্ট ইনজেকশন ডিজেল ১.২ লিটার সালফায়ার এমপিএফআই ভিভিটি পেট্রল ইঞ্জিন৷ এটার নিজস্য ইলেকট্রিক  ভার্সন ও আছে : ইন্ডিকা  ভিস্তা  ইভি , যেটা পুরো ইলেকট্রিক মোটরে ২০০ কিলোমিটার যেতে পারে. এটা বাজারজাত হয় ২০১১ সালে৷

কেন কিনবেন টাটা গাড়ি?

মারুতি আর হ্যুন্দাই  এর পর টাটা এশিয়ান বাজারে সবচেয়ে বৃহৎ গাড়ি নির্মাতা গুলোর মধ্যে একটি৷ প্রথমত, এদের ডিজেল ইঞ্জিন পেট্রল ইঞ্জিন থেকে অনেক ভালো মাইলেজ  দেয়. তাছাড়া, টাটা অন্যান্য ব্র্যান্ড থেকে অনেক বেশি সাশ্রয়ী৷ টাটা আপনাকে দেবে আবহাওয়ার সাথে খাপ খাইয়ে গাড়ির ফীচার্স দেয়৷  

টাটা গাড়ি ক্রয় করার প্রাথমিক কারণ হলো এটা আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতে নির্মিত, আর তাই আমাদের  দেশের অবস্থার  জন্য  খুবই  উপযুক্ত ৷ বাংলাদেশ আর ভারতের ট্রাফিক এর অবস্থা আর সাধারণ লাইফস্টাইল একইরকম হওয়াতে, বাংলাদেশের মিড-রেঞ্জ গাড়ি ক্রেতাদের জন্য এটা খুব প্রাকটিক্যাল একটা চয়েস৷

বাংলাদেশে টাটা গাড়ির উপলব্ধি

টাটা মটরস নির্মিত প্রায় ৫৩০,০০০টি গাড়ি আছে বাংলাদেশের রাস্তায়৷ কারমুডিতে টাটার যেই মডেলগুলো পাবেন, সেগুলো হচ্ছে টাটা  ইন্ডিগো  ২০১২ আর টাটা  ২.২ কাউবয়  ২০১১৷ অন্যান্য মডেলের মধ্যে আছে ন্যানো, ইন্ডিগো ইসিএস জিভিএক্স. আর টাটা মটরস নিজেই বাংলাদেশে টাটা যানবাহন বাজারজাত করে৷

সম্প্রতি টাটা বাংলাদেশের অটোমোবাইল মার্কেটে ঢুকেছে ২টি সেডান আর ১টা হ্যাচবাক এর সাথে - ইন্ডিগো ইসিএস , ইন্ডিগো  মান্জা  এবং  ইন্ডিকা  ভিস্তা৷ এই গাড়িগুলো ঢাকার শোরুমগুলোতে এবং আরও ৩টি শহরে ২০১৩ সালের মধ্যে উপলব্ধ হবে বলে আশা করা যাচ্ছে৷