: প্রস্তাবিত

BDT 600,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

BD

Badalkhan382 Badalkhan382
  • 8,000 কিলোমিটার

Built on the ACE platform, the new Tata ACE EX2 is a tough vehicle, known for its performance, style and car like driving comfort.The vehicle is fitted with a 5 speed gearbox, a powerful 700 cc e...

BDT 790,000

Dhaka

Sirajul Islam
  • নতুন

TATA ACE EX2 Engine: Tata 275 IDI NA (BSIII) Power (hp @ rpm) : 16 hp @ 3200 rpm CC: 702cc Torque(mkg@rpm) : 3.8@2000 Steering: Mechanical steering gear box Body (L*W*H) : 7.1 * 4.7 * 1(In Feet) ...

BDT 330,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

ঢাকা

Omulhasan Omulhasan
  • 20,000 কিলোমিটার

Tata ace 2012 11-3145 Modified pick-up 5k petrol engine set kora hoyasa o cng kora asa

BDT 750,000

Dhaka

Sirajul Islam
  • নতুন

TATA ACE EX2 Engine: Tata 275 IDI NA (BSIII) Power (hp @ rpm) : 16 hp @ 3200 rpm CC: 702cc Torque(mkg@rpm) : 3.8@2000 Steering: Mechanical steering gear box Body (L*W*H) : 7.1 * 4.7 * 1(In Feet) ...

BDT 500,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

চট্টগ্রাম

Azad_ctgkk Azad_ctgkk
  • 50,000 কিলোমিটার

Akta modern food buzz sell kora Hobe. Like international kitchen indoor. More information call me.

BDT 330,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

ঢাকা

Minarsmia Minarsmia
  • 20,000 কিলোমিটার

ভাল অবস্থা সব কাগজ ঠিক আছে ঢাকা মেট্রো 16-1846

ফলাফল হালনাগাদ করুন
বাংলাদেশে টাটা গাড়ি বিক্রয়

বাংলাদেশে টাটা গাড়ি বিক্রয়

যখনি আমরা মোটর যানের কথা চিন্তা করি, তখনি আমাদের মনে পরে জাপানী ব্র্যান্ডগুলোর কথা, যেমন হোন্ডা আর টয়োটা , যেগুলো বাজারের ওপর রাজত্ব করে চলেছে৷ কিন্তু আমাদের উপমহাদেশের ভেতরেই আছে আরেকটি বৃহৎ যান বাহন নির্মাতা, যেটার কারণে আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারতের গর্ব করার অনেক কারণ আছে৷ এই গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি টাটা  মটরস ৷ এটার সদর দপ্তর মহারাষ্ট্রের মুম্বাই শহরে, আর উৎপাদন প্লান্ট আর অ্যাসেম্বলি লাইন আছে জামশেদপুর, পান্টনগর, লাকনাউ, সানন্দ, ধারওয়াদ, আর পুনেতে। টাটা মটরস পৃথিবীর ষোলতম বৃহৎ গাড়ি নির্মান কোম্পানি৷

১৯৯১ সালে টাটা সিয়ের্রা নামক প্রথম গাড়ি নির্মান করে এরা অটোমোবাইল শিল্পে ভারতের হাতেখড়ি দিয়েছে৷ তারপর ১৯৯৮ সালে বাজারজাত হয় টাটা ইন্ডিকা, আর ২০০৮ সালে টাটা ন্যানো, যেটা পৃথিবীর সবচেয়ে সাশ্রয়ী গাড়ি৷  

বাংলাদেশে টাটার জনপ্রিয় মডেলগুলো

টাটা মটরস প্রধানত উৎপাদন করে কম্প্যাক্ট গাড়ি, মাঝারি আকারের গাড়ি আর ইউটিলিটি যান৷ পৃথিবীর ২৬টি দেশে আর ৪টি মহাদেশে এটার মার্কেট আছে, কিন্তু এটার প্রধান মার্কেট এই উপমহাদেশেই, আর বাংলাদেশ এই গাড়ির জন্য অনেক বড় একটা বাজার৷ টাটা ন্যানোর মত মডেল সারা বিশ্বে অনেক নাম করেছে এটার স্বল্প দামের জন্য৷ কারমুডিতে লিস্ট করা টাটা গাড়িগুলো হচ্ছে:

টাটা ন্যানো

টাটা ন্যানো ভারতে নির্মান ও বিক্রি হয় এই লক্ষ্য নিয়ে যে সবার  জন্য  একটি  গাড়ি  হবে৷ এটার গড় মুল্য ১০০,০০০ ভারতীয় রুপী (১,২৫,০০০ টাকা)৷ সময়ের সাথে এই দামটা বাড়ে। ফীচার্স এর দিকে থেকে এটার পাওয়ার স্টিয়ারিং ছিল না, যেটার কারণ এটার হালকা ওজন৷ তাছাড়া এটার  বিল্ট  ইন  এয়ারব্যাগ  বা এয়ার  কন্ডিশনিং  ও ছিল না৷ এটার রিয়ার ইঞ্জিন ৬২৪ সিসি, যেটার আছে আরও বড় দুটো সিলিন্ডার (একেকটা ৩১২ সিসি)৷ এটার ত্বরণ ৩০ সেকেন্ড০ থেকে ৬০ কিমি/ঘন্টা, আর ফুয়েল  এফিসিয়েন্সি  ২৫.৩৫ কিমি  প্রতি  লিটার ৷ টাটা ন্যানোর দ্বিতীয় প্রজন্ম ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বাজারজাত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে৷

টাটা ইন্ডিকা

১৯৯৮ সালে নির্মিত, টাটা ইন্ডিকা ভারতের প্রথম লোকাল ভাবে ডিসাইন করা সুপারমিনি  গাড়ি ৷  এটা ভারতের সবচেয়ে বেশি  বিক্রি  হওয়া  গাড়িগুলোর  মধ্যে  একটি , আর ২০০৪ সাল ধরে ইউরোপে এবং আমেরিকাতে রপ্তানি শুরু হয়েছে৷ টাটা মটরস এই গাড়ির প্রথম প্রজন্ম ১.৪ লিটার ডিজেল বা পেট্রল ইঞ্জিন সহ ইন্ডিকা ভিটু নামে রি-ইঞ্জিনিয়ার করে কারণ তারা অনেক অভিযোগ পায়৷ এই ২য় প্রজন্ম একেবারে নতুন প্লাটফর্ম নিয়ে নির্মান হয় আর প্রথম  প্রজন্মের ইন্ডিকার  সাথে  এটার  কোনো  মিল  নেই ৷ এটা আকারে আরো বড় এবং এটার আছে ফিয়াত এর ১.৩ লিটার কুয়াদ্রাযেত কমন রেল ডাইরেক্ট ইনজেকশন ডিজেল ১.২ লিটার সালফায়ার এমপিএফআই ভিভিটি পেট্রল ইঞ্জিন৷ এটার নিজস্য ইলেকট্রিক  ভার্সন ও আছে : ইন্ডিকা  ভিস্তা  ইভি , যেটা পুরো ইলেকট্রিক মোটরে ২০০ কিলোমিটার যেতে পারে. এটা বাজারজাত হয় ২০১১ সালে৷

কেন কিনবেন টাটা গাড়ি?

মারুতি আর হ্যুন্দাই  এর পর টাটা এশিয়ান বাজারে সবচেয়ে বৃহৎ গাড়ি নির্মাতা গুলোর মধ্যে একটি৷ প্রথমত, এদের ডিজেল ইঞ্জিন পেট্রল ইঞ্জিন থেকে অনেক ভালো মাইলেজ  দেয়. তাছাড়া, টাটা অন্যান্য ব্র্যান্ড থেকে অনেক বেশি সাশ্রয়ী৷ টাটা আপনাকে দেবে আবহাওয়ার সাথে খাপ খাইয়ে গাড়ির ফীচার্স দেয়৷  

টাটা গাড়ি ক্রয় করার প্রাথমিক কারণ হলো এটা আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতে নির্মিত, আর তাই আমাদের  দেশের অবস্থার  জন্য  খুবই  উপযুক্ত ৷ বাংলাদেশ আর ভারতের ট্রাফিক এর অবস্থা আর সাধারণ লাইফস্টাইল একইরকম হওয়াতে, বাংলাদেশের মিড-রেঞ্জ গাড়ি ক্রেতাদের জন্য এটা খুব প্রাকটিক্যাল একটা চয়েস৷

বাংলাদেশে টাটা গাড়ির উপলব্ধি

টাটা মটরস নির্মিত প্রায় ৫৩০,০০০টি গাড়ি আছে বাংলাদেশের রাস্তায়৷ কারমুডিতে টাটার যেই মডেলগুলো পাবেন, সেগুলো হচ্ছে টাটা  ইন্ডিগো  ২০১২ আর টাটা  ২.২ কাউবয়  ২০১১৷ অন্যান্য মডেলের মধ্যে আছে ন্যানো, ইন্ডিগো ইসিএস জিভিএক্স. আর টাটা মটরস নিজেই বাংলাদেশে টাটা যানবাহন বাজারজাত করে৷

সম্প্রতি টাটা বাংলাদেশের অটোমোবাইল মার্কেটে ঢুকেছে ২টি সেডান আর ১টা হ্যাচবাক এর সাথে - ইন্ডিগো ইসিএস , ইন্ডিগো  মান্জা  এবং  ইন্ডিকা  ভিস্তা৷ এই গাড়িগুলো ঢাকার শোরুমগুলোতে এবং আরও ৩টি শহরে ২০১৩ সালের মধ্যে উপলব্ধ হবে বলে আশা করা যাচ্ছে৷