: প্রস্তাবিত

BDT 650,000

ঢাকা

Ovi Ahmed
  • 20,000 কিলোমিটার

Suzuki liana 2006 (japan) Full fresh condition papers uptodate 2019 showroom condition not a single scratch

BDT 920,000 মূল্য পরিবর্তনশীল

ঢাকা

Zara Rahman
  • 90,000 কিলোমিটার

Suzuki liana (japan) Showroom condition only family used not a single scratch 2 years paper uptodate AC new condition Registration 2008

ফলাফল হালনাগাদ করুন
বাংলাদেশে সুজুকি লিয়ানা বিক্রয়

বাংলাদেশে সুজুকি লিয়ানা বিক্রয়

সুজুকি লিয়ানা, যা কিনা সুজুকি এরিও নামেও পরিচিত, হচ্ছে সুজুকি মোটর কর্পোরেশনের তৈরি একটি কম্প্যাক্ট গাড়ি। ২০০১ সালে উন্মোচিত হয়ে এটি সুজুকি এস্টিম/ব্যালেনোর মত মডেলগুলোর জায়গা নিয়ে নেয় এবং সুজুকি সুইফট থেকে অনুপ্রেরণা নেয়। লিয়ানা ২০০৭ সালে উৎপাদন বন্ধ করে দেয় এবং সুজুকি এসএক্স৪ এর স্থান নেয়।

সুজুকি লিয়ানা রিভিউ

সুজুকি লিয়ানা ইঞ্জিন বিস্তারিত ও পারফর্মেন্স

বিশ্বজুড়ে সুজুকি লিয়ানা নানান ইঞ্জিন আকারে আসে যেমন কিনা ১.৩ লিটার, ১.৫ লিটার, ১.৬ লিটার, ১.৮ লিটার, এবং ১.৯ লিটার। বাংলাদেশে সাধারণত ১৬-ভাল্ভের গ্যাসোলিন স্ট্রেট-৪ বিশিষ্ট ১.৩ লিটার (প্রায় ১২৯৫ সিসি, ৯০ হর্সপাওয়ার উৎপাদন করে) এবং ১.৫ লিটার (প্রায় ১৪৯৬ সিসি, ১৩০ হর্সপাওয়ার উৎপাদন করে) ব্যবহার করা হয়ে থাকে। সবগুলো ইঞ্জিন আসে ৫-স্পিড ম্যানুয়াল নিয়ে এবং অল-হুইল ড্রাইভের জন্য ৪-স্পিড অটোম্যাটিক ট্রান্সমিশন প্রদান করে থাকে। সব লিয়ানা মডেল পেট্রল এবং ডিজেল ভার্সন হলেও ফ্রন্ট ইঞ্জিন ও ফ্রন্ট হুইল ড্রাইভ প্রদান করে থাকে। লিয়ানার সর্বোচ্চ গতি হচ্ছে ঘন্টায় ১৭৫ কিমি, ০-১০০ কিমি মাত্র ১১.১ সেকেন্ডে তুলতে পারে আর এর জ্বালানী সাশ্রয় হচ্ছে ১০০ কিমিতে মাত্র ৬.৯ লিটার শহুরে কিংবা হাইওয়েতে।

সুজুকি লিয়ানা ডিজাইন

এই হ্যাচব্যাকটি লম্বা পাঁচ-দরজার এসএক্স মডেল হ্যাচব্যাক এবং ৪-দরজার সেডান বডিতে পাওয়া যায় ভেতরের জায়গার সর্বোচ্চ ব্যবহারের জন্য। এর স্বচ্ছ কাঁচের ট্র্যাপেজয়েড হেডলাইট, মেটালিক রঙের রেডিয়েটর গ্রিল এবং ভারটিকাল রিয়ার লাইট জিওমেট্রি একে এক অত্যাধুনিক স্টাইলিশ আমেজ এনে দেয়। এর উচ্চতা ১.৫৫ মিটার, যা চালককে চালককে বেশ ভাল দৃষ্টি সীমা প্রদান করে।

৪.২৩ মিটার লম্বা লিয়ানা কম্বি এবং কম্প্যাক্ট ভ্যানের এক মিলন যা কিনা পাঁচজন পূর্ণবয়স্ক আরোহীর জন্য যথেষ্ট স্বাচ্ছন্দ্যে থাকতে দেবে। ড্রাইভারের জন্য আছে টু-টোন ড্যাশবোর্ড যা স্পিডোমিটার এবং অডোমিটারের জন্য ডিজিটাল লিকুইড ক্রিস্টাল ইন্সট্রুমেন্ট ব্যবহার করে থাকে। স্টিয়ারিং হুইল এবং ড্রাইভারের সিট এডজাস্ট করে নেয়া যায়। ট্রাঙ্ক মাত্র ২৯৬ লিটার বহন করতে সক্ষম, যা বাড়িয়ে ১০৬২ লিটার করা যায় পেছনের সিটগুলো ভাঁজ করে। সামনের দরজায় শেলফ আছে আর প্যাসেঞ্জার সিটের তলায় স্টোরেজ বাস্কেট আছে, আরো আছে ফ্রন্ট এবং রিয়ার প্যাসেঞ্জারের জন্য কাপ হোল্ডার।

সুজুকি লিয়ানা বৈশিষ্ট্য

সুজুকি লিয়ানার সাধারণ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে সেন্ট্রাল লকিং, পাওয়ার উইন্ডো, পাওয়ার স্টিয়ারিং এবং এবিএস। অন্যান্য নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্যের মাঝে আছে হ্যান্ড-অনলি ড্রাইভার এবং প্যাসেঞ্জার এয়ারব্যাগ। আগে কেবল ১.৬ লিটার ভার্সনটিতে সাইড এয়ারব্যাগ ছিল, যা কিনা এখন কম্প্যাক্টদের জন্য সাধারণ।

বাংলাদেশে সুজুকি লিয়ানার মূল্য

বাংলাদেশে বিক্রির জন্য বেশ কিছু সুজুকি লিয়ানা কারমুডিতে পাওয়া যাচ্ছে। যেহেতু সুজুকি লিয়ানার উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে, তাই সবগুলো মডেল সেকেন্ডহ্যান্ড পাবেন। সুজুকি লিয়ানার বর্তমান দাম কারমুডির তালিকা অনুযায়ী নিচে দেয়া আছে এবং যা সময়ের সাথে পরিবর্তিত হতে পারে।

সুজুকি লিয়ানা ২০০৩ মূল্য: ব্যবহৃত  – ৫ লাখ টাকা

আপনি কেন সুজুকি লিয়ানা কিনবেন?

সুজুকি লিয়ানা হচ্ছে এ যুগের সেরা কম্প্যাক্ট গাড়ি। অন্যান্য সুজুকি গাড়ির চাইতে বড় ইঞ্জিন এবং বডি এটির। এর জ্বালানী সাশ্রয় এবং জায়গা এর দামের ন্যায্যতা প্রমান করে, যদিও এটি তার বৈশিষ্ট্য এবং কাজের জন্য বেশ কমদামেই পাওয়া যায়। এটি সেরা শহুরে গাড়ি যা আপনার বাসা থেকে যাতায়াতের জন্য তো কাজেরই, তার উপর ছুটির দিনে বেড়াতে যাবার জন্য মানানসই। সুজুকি লিয়ানার বিকল্প গাড়ি হচ্ছে সুজুকি সুইফট, হোন্ডা সিটি, এবং টয়োটা ইয়ারিসছোট পরিবারসমেত গাড়িক্রেতাগণ লিয়ানা কিনতে চাইবেন কারন এর:

  • নির্ভরশীলতা
  • সকল সুবিধাসমেত প্রস্তুত এবং সহজে চালানো যায়
  • আরামদায়ক স্টিয়ারিং এবং মসৃণ হ্যান্ডলিং
  • চালাতে সহজ এবং মজার